অটোমোবাইল ইন্ডাস্ট্রিতে সলিডওয়ার্কসের ব্যবহার কেমন? চলুন জেনে নিই এই ব্লগে!!

অটোমোবাইল ইন্ডাস্ট্রিতে সলিডওয়ার্কসের ব্যবহার

বিশ্বের সর্বত্রই যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে অটোমোবাইল ইন্ডাস্ট্রি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে এসেছে। দৈনন্দিন জীবনে মানুষের জীবনযাত্রাকে সহজ করার লক্ষ্যে তৈরি করা এই অটোমোবাইল ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করেন অনেক অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ার। অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ারিং এ বিএসসি বা ডিপ্লোমা সম্পন্ন করা এই ইঞ্জিনিয়াররা দীর্ঘদিন বিভিন্ন বাইক, কার, বাস ম্যানুফ্যাকচারিং ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করে নিজেদের অভিজ্ঞতার ঝুলিকে আরো প্রসারিত করছেন। এ ধরনের ইঞ্জিনিয়ারিং এ পড়াশুনার ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের বেশি গুরুত্ব দিতে হয় ড্রয়িং এ। কারণ, অটোমোবাইল ড্রয়িং হল একটি মোটোরযানের খুঁটিনাটি সব বিষয়ের ব্যপারে একজন ইঞ্জিনিয়ারের জ্ঞান আহরণ করার প্রথম ধাপ। একটি মোটোরযানের ইঞ্জিন থেকে শুরু করে এর বডিপার্টের বিভিন্ন অংশ যখন একজন শিক্ষার্থী মনের খাতায় এঁকে নিতে পারেন, তখনই কিন্তু তার আয়ত্বে চলে আসে এই পুরো প্রক্রিয়াটি।আর  মোটোরযান ডিজাইনিং এ এখন পুরো বিশ্বেই দাপটের সাথে রাজত্ব করছে সলিডওয়ার্কস।

car-49278_1920

হার্ডওয়্যারের উন্নয়নের সাথে সাথে আর্টিফিশিয়াল ইন্ট্যালিজেন্সের ব্যবহার এখন অটোমোবাইল ইন্ডাস্ট্রিকে করে তুলেছে অনেক সমৃদ্ধ। গাড়ি ও মোটর  বাইকের ডিজাইন আগের প্রথাগত ডিজাইন থেকে অনেকটা সরে এসে এখন হয়েছে অনেকটা পরিবর্তিত। এই পরিবর্তনের পেছনে মুখ্য ভূমিকা রয়েছে গাড়ি ও বাইক ডিজাইনারদের। ডিজাইনাররা বছরের পর বছর গবেষণা করে অন্যান্য প্রযুক্তির সাথে তাল রেখে সুনিপুণভাবে কাজ করে চলেছেন গাড়ির  ডিজাইন আরো আকর্ষণীয় ও ব্যবহারকারীর জন্য আরো আরামদায়ক করে তোলার জন্য।এই ডিজাইনিং এর জটিল কাজকে আরো সহজ করে তুলেছে সলিডওয়ার্কস। সলিডওয়ার্কসের মাধ্যমে ম্যাটেরিয়াল সিলেকশন করে একজন ডিজাইনার গাড়ির ইন্টেরিয়র ও এক্সটেরিয়র দুটিই খুব সহজে ডিজাইন করতে পারেন। একজন ডিজাইনার সলিডওয়ার্কসের এডভান্সড সিমুলেশন টেকনিকের মাধ্যমে মোটরযানের বিভিন্ন অংশ থেকে ক্রিটিক্যাল জোনগুলি আলাদা করে নিতে পারেন। এরপর তিনি  সেই অংশের উন্নয়ন নিয়ে কাজ করতে পারেন।

ford-63930_1920

অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ারিং এ হাতে-কলমে শিক্ষার জন্য বাংলাদেশের তরুণরাও এখন বেশ আগ্রহ প্রকাশ করছেন। এসব তরুণদের মধ্যে মোটরযানের মেকানিক্যাল বিষয়গুলি বোঝার আগ্রহ ও দেশের মোটর চালিত যানবাহন মেইন্টেইন্যান্স এ ক্রমাগত চাহিদার উপর ভিত্তি করে বাংলাদেশে সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগে বেশ কিছু কারিগরী প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে।

বাংলাদেশে দুটি সরকারিসহ মোট আটটি ইন্সটিটিউটে অটোমোবাইল ইঞ্জিনিইয়ারিং বিষয়ে পড়ার সুযোগ রয়েছে। ইন্সটিটিউটগুলি হলোঃ

 * ঢাকা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট, তেজগাঁও, ঢাকা-১২০৮।
 * বাংলাদেশে-সুইডেন পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট, কাপ্তাই, রাঙামাটি।
 * বাংলাদেশ পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট, ই-৩৯৫, হাতেম খাঁ তমিজউদ্দিন রোড, রাজশাহী।
 * সাকিনা আজহার টেকনিক্যাল কলেজ, মূলঘর, ফকিরহাট, বাগেরহাট।
 * শ্যামলী আইডিয়াল পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট, ১৬/সি-ডি, ব্লক-ডি, নূরজাহান রোড, মোহাম্মদপুর। চট্টগ্রাম শাখা: ১৩২ নাসিরাবাদ হাউজিং সোসাইটি, মুরাদপুর, চট্টগ্রাম।
 * মটস ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজি, পল্লবী, মিরপুর-১২, ঢাকা।
 * মিরপুর পলিটেকনিক্যাল ইন্সটিটিউট, ৩২৩, ৩৩১, আহম্মদনগর, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬।
 * চিটাগাং টেকনিক্যাল কলেজ, ১২৯, মুরাদপুর, বিশ্বরোড, চট্টগ্রাম।
bmw-2964072_1280
এসব প্রতিষ্ঠানে এখন অত্যাধুনিক কারিগরী সুবিধাসহ শিক্ষার্থীরা খুব সহজেই এ ইঞ্জিনিয়ারিং শাখার খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে প্রায়োগিক জ্ঞান অর্জন করছেন।এ জ্ঞানার্জনের শুরুই হয় গাড়ির ম্যানুয়েল স্কেচ দিয়ে। পরে আস্তে আস্তে শিক্ষার্থীদের পরিচয় ঘটে অটোক্যাড সফটওয়্যারের সাথে। অটোক্যাডে ২ ডি স্কেচ শেখার পর ধীরে ধীরে তাঁরা কাজ শুরু করেন থ্রিডি নিয়ে। আর এখানেই তাদের পরিচয় ঘটে সলিডওয়ার্কস এর সাথে। সলিডওয়ার্কসের সুবিশাল ডিজাইন লাইব্রেরি এই থ্রিডি ডিজাইনিং এর কাজে যোগ করে এক নতুন মাত্রা।বিভিন্ন ধরণের নাট-বোল্ট থেকে শুরু করে সব রেডিমেট মেকানিক্যাল পার্ট নিয়ে এসে শুধু এসেম্বলি করেই অনেকে শুরুতে তৈরি করে ফেলতে পারেন তার গাড়ির ডিজাইনের বেশ কিছু অংশ। এটি যেমন তার কাজের সময়টিকে অনেক কমিয়ে আনে ঠিক তেমনি তার আত্মবিশ্বাসকেও অনেক বাড়িয়ে দিতে সাহায্য করে।এর মাধ্যমেই কিন্তু থ্রিডি ডিজাইনের সলিডওয়ার্কসের এই বিশাল জগতে হবু ইঞ্জিনিয়াররা প্রথম পদক্ষেপ ফেলেন। ক্রমাগত অনুশীলনের মাধ্যমে এই ডিজাইনিং স্কিল একসময় পরিণত হয়ে একজন পূর্ণাংগ ডিজাইনারের জন্ম দেয়।
car-1300629_1280
একজন অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ার চার ধরণের কোম্পানীতে কাজ করতে পারেন। সেগুলো হলঃ
  • গাড়ি আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান
  • গাড়ি উৎপাদনকারক প্রতিষ্ঠান
  • কার সার্ভিস সেন্টার
  • পরিবহন প্রতিষ্ঠান

এর মধ্যে গাড়ি উৎপাদনের ক্ষেত্রে ডিজাইন, ড্রয়িং, ক্যাল্কুলেশনের সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন পড়লেও বাকে ক্ষেত্রগুলোতেও ড্রয়িং সেন্সের অনেক প্রয়োজন পড়ে। কারণ, একটি গাড়ির বেসিক ড্রয়িং দেখেই তার মেইন ফিচারগুলি বুঝতে পারা একজন দক্ষ ইঞ্জিনিয়ারের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আর সলিডওয়ার্কসের থ্রিডি ডিজাইনে ভালো দক্ষতা থাকলে এ ধরণের কাজগুলোতে দক্ষ হওয়া খুবই সহজ হয়ে যায়।আর এই দক্ষ লোকদের সুনাম পুরো ইন্ডাস্ট্রিতে থাকে সবার মুখে মুখে। তাই, সহজেই বলা যায় যে, সলিডওয়ার্কস ডিজাইন ও মোটরযান এর  থ্রিডি  মডেলিং পরস্পরের পরিপুরক হয়ে দাঁড়িয়েছে।

Picture 1

পরিশেষে, এটি দ্ব্যর্থহীন কন্ঠে বলা যায় যে, অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ারিং এর এই স্বর্ণালী যুগে একজন ইঞ্জিনিয়ারের উচিত যত তাড়াতাড়ি পারা যায় সলিডওয়ার্কসের এই থ্রিডি ডিজাইন টেকনিকের সাথে সুসম্পর্ক গড়ে তোলা। সলিডওয়ার্কসে পারদর্শিতাই একজন ইঞ্জিনিয়ারকে তৈরি করতে পারে অটোমোবাইল জগতের একজন নতুন সম্রাট হিসেবে।

ফেইসবুকের সাহায্যে মন্তব্য দিন

Leave a Reply to Eng. Ali Kaiser Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

2 Comments

  • Mahedi Hasan 3 months ago

    আপনার ব্লগটি সম্পুর্ণ পড়ে অনেক কিছু জানতে পেরেছি। তাই আপনাকে অসংখ্য ধন্যবা। 😊