গ্রাফিক রিভারের ১০ হট সেল আইটেম | ফ্রিল্যান্স ক্যারিয়ারে বিশাল সম্ভাবনা!

মার্কেটপ্লেস হিসেবে এনভাটো খুবই জনপ্রিয়। গ্রাফিক্সের কোয়ালিটি, ডিজাইনারদের ক্রমবর্ধমান আর্নিংস সিস্টেম, অর্থ উত্তোলনের নির্ভরযোগ্যতা ইত্যাদির কারনে বায়ার ও ফ্রিল্যান্সারদের কাছে অত্যন্ত নির্ভরযোগ্য মার্কেটপ্লেস হিসাবে গ্রহনযোগ্যতা পেয়েছে। গ্রাফিক রিভার এনভাটোর একটি বিশেষ মার্কেটপ্লেস যেখানে মূলতঃ গ্রাফিক ডিজাইন এলিমেন্ট ক্রয়-বিক্রয় করা হয়। একজন প্রফেশনাল গ্রাফিক ডিজাইনার এ মার্কেটপ্লেস থেকে আয় করতে পারে হাজার হাজার ডলার। অনেকেরেই গ্রাফিক রিভারে ডিজাইন জমা দিয়ে আয় করার তথ্য/পদ্ধতি সম্পর্কে জানা রয়েছে। এ বিষয়ে প্রযুক্তি টিম প্রকাশ করেছে বেশ কয়েকটি ব্লগ। আপনি জানেন কি, বর্তমানে গ্রাফিক রিভারে সবচেয়ে বেশি বিক্রয় হওয়া আইটেমগুলো কি কি? তাহলে চলুন জেনে নেই গ্রাফিক রিভারের সর্বাধিক বিক্রয় হওয়া ১০ টি আইটেম সম্পর্কে।

১. বিজনেস কার্ড

dd

প্রফেশনাল মানের বিজনেস কার্ডের চাহিদা ব্যাপক। গ্রাফিক রিভারে একটি বিজনেস কার্ড ১৫০০ বার এর অধিক পর্যন্ত বিক্রয় হয়। ক্লিন, প্রফেশনাল, মর্ডার্ণ বিজনেস কার্ড ডিজাইন করে গ্রাফিক রিভারে এপ্রুভ করানোর মাধ্যমে আপনার ফ্রিল্যান্স ক্যারিয়ার সাড়া জাগাতে পারেন। যদিও একটি বিজনেস কার্ড ভাল ভাবে ডিজাইন করতে সর্বোচ্চ ২/৩ ঘন্টা সময় ব্যয় হতে পারে। আপনার বিজনেস কার্ডটি ইউনিক হলে সেল ও বাড়বে অনেক গুণ। গ্রাফিক রিভারের বেশিরভাগ বিজনেস কার্ড ফটোশপে করা হয়। আপনি ইচ্ছে করলে গ্রাফিক রিভারের বেস্ট সেলার আইটেম যা আন্তর্জাতিক মানের প্রফেশনাল গ্রাফিক্স ডিজাইনাদের করা, তাদের কাজ থেকে কনসেপ্ট নিয়ে শুরু করতে পারেন।

২. ব্রশিউর

ScreenShot_20170311121730

ব্রশিউর গ্রাফিক রিভারের হট সেলিং আইটেমের মধ্যে একটি। গ্রাফিক রিভারের বেশিরভাগ ব্রশিয়ারই ইলাস্ট্রেটর এবং ইনডিজাইন এ করা। গ্রাফিক রিভারে একটি ব্রশিয়ার ৩০০০+ পর্যন্ত সেল হওয়ার রেকর্ড রয়েছে। আপনি যদি ব্রশিয়ার ডিজাইনে এক্সপার্ট হোন, তাহলে গ্রাফিক রিভার হতে পারে আপনার ক্যারিয়ারের মাইল ফলক। ইলাস্ট্রেটরে ব্রশিয়ার ডিজাইন করা অত্যন্ত সহজ। একটু চেষ্টা আর অধ্যবসায় থাকলে আপনি ও আয় করতে পারেন হাজার হাজার ডলার।

৩. ব্যানার

rr

ব্যানার একটি গুরুত্বপূর্ণ ডিজাইন ইলিমেন্ট। প্রায় গ্রাফিক ডিজাইন প্রযেক্ট এ ব্যানার এর ব্যবহার হয়। গ্রাফিক রিভারে বিক্রি হওয়া ব্যানারগুলো অত্যন্ত মানসম্মত ও প্রফেশনাল। যা সাধারণত ফটোশপ/ইলাস্ট্রেটরে তৈরী করা হয়। আর এই ব্যানার তৈরী করতে সর্বোচ্চ ৩০ মিনিট সময় লাগতে পারে। ব্যানারের একটি মজার ব্যাপার হল এই আইটেমটি বিক্রয় হয়নি, এমন কখনও হয়নি। অর্থাৎ আপলোড, এপ্রোভের পর নিশ্চিত সেল।

৪. স্টিকার

Sticker

গ্রাফিক রিভারে ৯৯% বিক্রয় সম্ভাবনার আইটেমটি হল স্টিকার। যা মূলত ফটোশপে তৈরী করা হয়। প্রফেশনাল মানের স্টিকার যদি আপনি তৈরী করতে পারে তা বিক্রয় হতে পারে ৫০ থেকে ৩০০০ এর ও বেশি পরিমান।

৫. বাটন

button

গ্রাফিক রিভারের হট সেলিং আইটেমের মধ্যে বাটন অন্যতম। এটি ১০ বার থেকে শুরু করে ৩০০০+ সেল হওয়ার রেকর্ড রয়েছে।

৬.ফেসবুক টাইমলাইন কভার

ফেইসবুক টাইমলাইন কভার স্যোসাল মিডিয়ারই একটি এলিমেন্ট। সবাই চায় তার একটি দৃষ্টিনন্দন টাইমলাইন কভার হোক। এজন্য পার্সোনাল, বিজনেস, কর্পোরেটসহ অসংখ্য ক্ষেত্রে প্রফেশনালমানের টাইমলাইন কভার ডিজাইনের চাহিদা বাড়ছে। নিচের স্ক্রিণশটটি দেখুন, বিক্রয়ের ভলিউম দেখেই অনুমান করুন-ফেসবুক টাইমলাইন কভারের চাহিদা!!

Facebook Timeline

৭. টেবিল

গ্রাফিক রিভারের অন্যতম হট আইটেম প্রাইসিং টেবিল। যার চাহিদাও ব্যাপক। টেবিল বেশিরভাগই ফটোশপে করা হয়। আপনি চাইলে আজই শুরু করতে পারেন।

Table

৮. স্যোসাল মিডিয়া

 Social Media

সারা বিশ্বে স্যোসাল মিডিয়া বর্তমানে একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। ফেসবুক, টুইটার নিয়ে কাজের পরিধি বেড়েছে অনেকগুন । প্রয়োজন হয়ে পড়ছে এ সম্পর্কিত ডিজাইন। স্যোসাল মিডিয়া বাটন, আইকন ইত্যাদির তাই বড় কদর! স্ক্রিণশটটি দেখুন অথবা গ্রাফিক রিভার সার্চ বক্সে সোশ্যাল মিডিয়া লিখে সার্চ দিন। দেখুন অধিকাংশ ডিজাইন ৫০ থেকে কয়েক হাজার বার পর্যন্ত সেল হয়েছে।

৯. ফটোশপ একশন

Action

গ্রাফিক রিভারের সর্বাধিক বিক্রয়ের তালিকায় রয়েছে ফটোশপ অ্যাকশন। একটি প্রিমিয়াম কোয়ালিটির অ্যাকশন তৈরি করে একজন অ্যাকশন ডিজাইনার এ পর্যন্ত আয় করেছে প্রায় ৭০০০ ডলার । এখানে ক্লিক করে দেখুন অ্যাকশনটির ধরন আর সেলের পরিমান।

১০. আইকন

ICON

ফটোশপ আইকন এমন একটি আইটেম যা্র সেল হয় না, এমনটি খুবই কম। অর্থাৎ, এপ্রুভ হলেই সেল!!

 

আরো বিস্তারিত জানতে দেখতে পারেন এই টিউটোরিয়াল গুলোঃ

গ্রাফিক রিভার সিরিজ টিউটিরিয়াল। পরিচিতি পর্ব

গ্রাফিক রিভার সিরিজ টিউটিরিয়াল। দ্বিতীয় পর্ব
গ্রাফিক রিভার সিরিজ টিউটিরিয়াল। তৃতীয় পর্ব
গ্রাফিক রিভার সিরিজ টিউটিরিয়াল। চতুর্থ পর্ব।

ফেইসবুকের সাহায্যে মন্তব্য দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

2 Comments

  • Mohim 2 years ago

    পড়ে ভfল লাগল। ধন্যবাদ।

  • দেখে দেখে যে কোন কাজ হুবুহু করতে পারি, নিজে থেকে খুব সুন্দর করে ডিজাইন করতে পারিনা। যদিও করি নিজের কাছেই পছন্দ হইনা। তাই আপনাদের সাহায্য চাইছি।