ওয়েব ডিজাইনারদের জন্য ১০টি ফ্রি ফটোশপ প্লাগ-ইন্স

ওয়েব ডিজাইনার কিংবা গ্রাফিক ডিজাইনারদের কাজের অন্যতম টুলস বা সফটওয়্যার হিসেবে ফটোশপের জনপ্রিয়তা তুলনাবিহীন। বিশেষ করে ফটোশপের বিভিন্ন ফিচার এবং টুলস এর ব্যবহারকারীদের কাছে এর নির্ভরযোগ্যতা বাড়িয়েছে। কিন্তু কাজের প্রোডাক্টিভিটি বাড়ানোর জন্য ফটোশপের কিছু প্লাগ-ইন আছে যেগুলো সত্যিই খুব চমৎকার ও কার্যকর ভূমিকা পালন করে। ফটোশপের কিছু কাজ আছে যেগুলো বারবার করা লাগে, যেকারণে এসব করতে গিয়ে ডিজাইনারদের পর্যাপ্ত পরিমাণে সময় নষ্ট হয়। তাছাড়া এগুলো বিরক্তিকরও বটে। কিন্তু ফটোশপে কিছু প্লাগ-ইন অ্যাড করে নিলে এসব বিরক্তিকর কাজ থেকে একদিক থেকে যেমন রেহাই পাওয়া যায়, অপরদিকে কাজও হয়ে উঠে স্বাচ্ছন্দ্যপূর্ণ ও দ্রুত!

এসব প্লাগ-ইন ব্যবহার করে আপনি যেসব পুনরাবৃত্তিমূলক কাজের হাত থেকে রেহাই পাবেনঃ

  • Long Shadow তৈরি করা
  • Layers তৈরি করা
  • PSD থেকে CSS3 তে কনভার্ট করা 
  • Photoshop Text থেকে SVG ফরম্যাটে কনভার্ট করা
  • Design Specs তৈরি করা
  • Skeuomorphic Design থেকে Flat Design এ কনভার্ট করা

আজ আমরা ফটোশপের যে প্লাগ-ইন নিয়ে কথা বলবো সেগুলো হচ্ছেঃ

  • Hexy
  • Size Marks
  • Pictura
  • Oven
  • Ink
  • LayerCraft
  • Composer
  • Velositey
  • Duplllicator
  • QuickGuide

 

১। Hexy:

দ্রুততার সাথে Hex এবং RGB কালার কোড পেতে Hexy প্লাগ-ইন ব্যবহৃত হয়। এতে থাকা eyedropper টুলসটি কোনো ইমেজে থাকা রঙ শনাক্ত করে সেটার কালার কোডটি আলাদা একটি ক্লিপবোর্ডে প্রদর্শন করে। আর এই কালার কোডটি পরবর্তীতে CSS এ বা ফটোশপে কালার সংক্রান্ত যেকোনো স্থানে পেস্ট করে কাজ দ্রুত করা সম্ভব।

কম্প্যাটিবিলিটিঃ Photoshop CC 2014

plugin

 

২। Size Marks:

এই প্লাগ-ইনটি দিয়ে আপনি একটি মারকিউ টুল ব্যবহার করে অবজেক্ট সাইজ, দুই অবজেক্টের মাঝে দূরত্ব প্রভৃতি লেবেল করে রাখতে পারবেন। এই লেবেলগুলো Size Marks এর আলাদা একটি লেয়ারে সেভড হয় এবং এতে আপনি যখনতখন যেকোনো পরিবর্তন আনতে পারবেন। এটা হতে রঙের পরিবর্তন কিংবা পজিশনগুলোর যেকোনোভাবে অ্যাডজাস্ট করতে। এই প্লাগ-ইনটি PSD থেকে কোনো ফাংশনাল ওয়েবসাইট কনভার্ট করার সময় ব্যাপক ব্যবহৃত হয়।

কম্প্যাটিবিলিটিঃ Photoshop CC 2014

plugin

৩। Pictura:

ডিজাইনের ভেতর ছবি অ্যাড করার জন্য এই প্লাগ-ইনটি ব্যবহার করতে পারেন। অনেকসময়ই দেখা যায় ডিজাইনের ভেতর ছবি অ্যাড করার জন্য ওয়ার্কস্পেস ছেড়ে আলাদা করে ব্রাউজারে বা অন্য কোনো স্টক ইমেজ সাইটে ছবি খোঁজার দরকার হয়। এক্ষেত্রে ফটোশপে যদি এই প্লাগ-ইনটি ইন্সটল করা থাকে তবে আর ওয়ার্কস্পেস থেকে ভিন্ন স্থানে যাওয়ার ঝামেলা করতে হয় না। Pictura প্লাগ-ইনটি ফটোশপে আলাদা একটা প্যানেল তৈরি করে দেয় যেখানে আপনি পছন্দমতো যেকোনো ছবি খুঁজে নিতে পারেন। আপনি কেমন লাইসেন্সের ছবি চাচ্ছেন সেটাও অ্যাড করে দেয়ার সুযোগ আছে।

কম্প্যাটিবিলিটিঃ Photoshop CC 2014

plugin

 

৪। Oven:

ফটোশপের বিভিন্ন অ্যাসেট ম্যানেজ করতে এই প্লান-ইনটি ব্যবহৃত হয়। ফটোশপের জেনারেটরের স্বয়ংক্রিয় ইমেজ এক্সপোর্টের ব্যবস্থা থাকলেও প্রত্যেকটা লেয়ারের অর্ডার বজায় রাখার জন্য ইমেজগুলোকে আলাদা আলাদা সুনির্দিষ্ট নাম দিয়ে সেট করতে হয়। আর এটা অনেক সময়সাপেক্ষ ব্যাপার। Oven প্লাগ-ইনটি ডিজাইনারদের এই সময়সাপেক্ষ ঝামেলাপূর্ণ কাজটি থেকে মুক্তি দিয়েছে।

কম্প্যাটিবিলিটিঃ Photoshop CC এবং CC 2014

plugin

৫। Ink:

PSD থেকে ফাংশনাল ওয়েবসাইটে কনভার্ট করা বরাবরই একটি সময়সাপেক্ষ ব্যাপার। কারণ PSD টেম্পলেটে লেয়ার স্টাইল, ফন্ট সাইজ, ফন্ট ফ্যামিলি, ইলিমেন্ট সাইজ, প্রতিটা ইলিমেন্ট সাইজ এবং পজিশনের মধ্যকার দূরত্ব প্রভৃতি তথ্যগুলো থাকে না। কিন্তু Ink প্লাগ-ইন এই যাবতীয় সকল তথ্য একটি প্যানেলে আলাদাভাবে প্রদর্শন করবে। তাই সকল ডিজাইনাররা PSD থেকে ফাংশনাল ওয়েবসাইট খুব সহজে অ দ্রুততার সাথে তৈরি করতে Ink প্লাগ-ইনটি ইন্সটল করে নিতে পারেন।

plugin

৬। LayerCraft:

ফটোশপের এই প্লাগ-ইনটি বিভিন্ন স্কেলে লেয়ার এক্সপোর্ট করতে ব্যবহৃত হয়। রেটিনা স্ক্রিনের IOS ডিভাইস কিংবা অ্যান্ড্রয়েডের জন্য বিভিন্ন সাইজের ইমেজ এক্সপোর্ট করতে এই প্লাগইন যথেষ্ট কাজে দেয়। মোবাইল ইন্টারফেসের জন্য UI তৈরি করতে এই প্লাগইনটি ব্যবহার করলে পর্যাপ্ত পরিমাণে সময় বেঁচে যাবে ডিজাইনারদের।

কম্প্যাটিবিলিটিঃ Photoshop CC এবং CC 2014

plugin

৭। Composer:

Photoshop Layer Comps feature এর ঝামেলাপূর্ণ কাজগুলো সহজ করে দিতে ডিজাইনাররা ফটোশপের Composer প্লাগইনটি ব্যবহার করতে পারেন। প্রত্যেকটা ডিজাইন রিভিশন সংরক্ষণ করার জন্য একের অধিক আলাদা আলাদা ফাইল তৈরি করার থেকে মুক্তি দেয় Layer Comps। এটি একটি সিঙ্গেল ফাইলেই এই সকল ডিজাইনগুলো ম্যানেজ ও স্টোর করতে সহায়তা করে। Layer Comps আসলে স্মার্ট অবজেক্টের মতো কাজ করে। লেয়ার স্টাইল ও ব্লেন্ডিং মোড এর মতো কিছু আলাদা আলাদা প্রোপার্টিসের সমন্বয়ে গঠিত হয়েছে এটি। কম্পোজার এক্ষেত্রে শুধু একটি ক্লিকের মাধ্যমেই সকল স্টাইল আপডেট করার সুবিধা দেয়। তাই ডিজাইনাররা সময় বাঁচিয়ে কাজের দ্রুততা আনতে Composer প্লাগ-ইনটি ব্যবহার করতে পারেন।

কম্প্যাটিবিলিটিঃ Photoshop CS5, CS6, and CC

plugin

৮। Velositey:

ওয়েব ডিজাইনের প্রোটোটাইপ তৈরি করতে Velositey প্লাগ-ইনটি সাহায্য করে। মূলতঃ টেম্পলেট বা টেম্পলেটের গ্রিড অ্যাডজাস্ট করতে এটি ব্যবহৃত হয়। এছাড়াও এতে ওয়েবসাইটের হেডার, কন্টেন্ট, ফুটার প্রভৃতির কমন প্লেসহোল্ডার লেআউট রয়েছে। আপনি চাইলে শুধুমাত্র এক ক্লিকেই এই সকল কম্পোনেন্ট আপনার ওয়েবসাইটের জন্য ব্যবহার করতে পারবেন। আর এই সকল কাজ করতে পারবেন এই Velositey নামের ফটোশপের এই প্লাগ-ইন দিয়েই!

কম্প্যাটিবিলিটিঃ Photoshop CS6, CC, CC 2014

plugin

৯। Duplllicator:

ফটোশপের লেয়ার বা গ্রুপগুলো খুব দ্রুততার সাথে ডুপ্লিকেট করতে এই প্লাগ-ইনটি ব্যবহৃত হয়। আপনি কয় কপি ডুপ্লিকেট করতে চান সেটাও এখানে উল্লেখ করে দিতে পারবেন। এছাড়াও ডুপ্লিকেট লেয়ারগুলোর ভার্টিকেল ও হরিজন্টালি স্পেসিং কত হবে সেটাও উল্লেখ করে কাজ করা যাবে ফটোশপের এই Duplllicator প্লাগ-ইনটির সাথে!

কম্প্যাটিবিলিটিঃ Photoshop CC and CC 2014

plugin

১০। QuickGuide:

এটি প্রকৃতপক্ষে ফটোশপের একটি ড্রয়িং গাইডলাইন। টুগল লকিং গাইড, ভিজিবিলিটি, ডিলেটিং এন্টায়ার গাইড, কপি-পেস্টিং প্রভৃতি গাইডলাইনে সমৃদ্ধ এই প্লাগইনটি ডিজাইনারদের ড্রয়িং এর জন্য বেশ সাহায্য করে।

কম্প্যাটিবিলিটিঃ Photoshop CC 2014

plugin

সময়ের সাথে সাথে ডিজাইনিং সেক্টরের প্রফেশনালসদের জন্য অনেক টুলস, প্লাগইন কিংবা সফটওয়্যার বের হয়েছে। উপর্যুক্ত বর্ণিত প্লাগইনগুলো ডিজাইনারদের কাজে যথেষ্ট গতি দিয়েছে, কাজকে করেছে স্বাচ্ছন্দ্যময়!

 

তথ্যসূত্রঃ

https://www.hongkiat.com/blog/free-photoshop-plugins/

https://www.youtube.com/

 

 

ফেইসবুকের সাহায্যে মন্তব্য দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.