5.00
(6 Ratings)

মাইক্রোসফট অফিস ২০১৯ বাংলা টিউটোরিয়াল কোর্স

Categories: Microsoft Office
Wishlist Share
Share Course
Page Link
Share On Social Media

About Course

মাইক্রোসফট অফিস ২০১৯ এর পরিপূর্ণ বাংলা ভিডিও টিউটোরিয়াল কোর্স


কম্পিউটার ব্যবহারের শুরু থেকেই বাংলাদেশিরা যেই সফটওয়্যারের সাথে খুবই সুপরিচিত- তা হল মাইক্রোসফট অফিস ২০১৯ এর ওয়ার্ড, এক্সেল ও পাওয়ার পয়েন্ট।মাইক্রোসফট অফিস ২০১৯ এর এই তিনটি সফটওয়্যারের ব্যবহার সমগ্র বিশ্বের মত বাংলাদেশেও বেশ জনপ্রিয়। এগুলি এতই প্রচলিত সফটওয়্যার যে, গ্রাম বা শহর, সরকারি বা বেসরকারি বিভিন্ন কোম্পানী, শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান, ব্যাংক থেকে শুরু করে সকল ক্ষেত্রে আমাদের এই সফটওয়্যারগুলো দিয়ে কাজ করতে হয়। মাইক্রোসফট (এম এস) অফিসের আরো বেশ কিছু সফটওয়্যার যেমনঃএম এস একসেস বা এই ধরণের আরো অনেক সফটওয়্যার থাকলেও এই তিনটি প্রধান সফটওয়্যারই সর্বক্ষেত্রে জনপ্রিয়।

 

মাইক্রোসফট ওয়ার্ডের মাধ্যমে সিভি বা কভার লেটার রাইটিং নতুন চাকুরি প্রত্যাশিতদের জন্য একটি অত্যাবশ্যকীয় কাজ। চাকুরি জীবনে প্রবেশের পূর্বে শিক্ষাজীবনেও কিন্তু ওয়ার্ড থাকে প্রত্যেক মানুষের নিত্য সংগী। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা তাদের বিভিন্ন এসাইনমেন্ট, রিসার্চ পেপার , রিপোর্ট রাইটিং এর কাজ করার সময় ব্যবহার করে থাকেন এই সফটওয়্যার। এই সফটওয়্যারের ব্যবহারের ব্যপ্তি অনেক বেশি হওয়ায় এটি শিক্ষার্থীদের সাথে শিক্ষকদেরকেও বেঁধে ফেলেন একই বন্ধনে। শিক্ষকরা তাদের বিভিন্ন লেকচার শিট তৈরিতে ব্যবহার করেন এই সফটওয়্যার; পাশাপাশি পরীক্ষার প্রশ্ন-পত্র তৈরি ও নানবিধ অফিসিয়াল ডকুমেন্ট তৈরিতেও ওয়ার্ড সফটওয়্যারের স্বরণাপন্ন হন। আর চাকুরিতে প্রবেশের সাথে সাথেই সবারই ওয়ার্ড সফটওয়্যার এর সাথে শুরু হয় নিত্য পথচলা। বিভিন্ন অফিসিয়াল ডকুমেন্ট থেক শুরু করে বিজনেস রিপোর্ট রাইটিং সর্বক্ষেত্রেই এই সফটওয়্যারের উপর সবাই নির্ভর করেন চোখ বন্ধ করেই। ইঞ্জিনিয়ার, ডাক্তার, ব্যাংকার, ডাটা এনালিস্ট, সরকারি বা বেসরকারি সর্ব ধরণের কর্মকর্তা- সবাই একবিন্দুতে মিলিত হন এম এস ওয়ার্ডের ব্যবহারের ক্ষেত্রে। কর্মক্ষেত্রে কোম্পানীর বিভিন্ন লেটার , এনভেলাপ অনেক কর্মকর্তার কাছে কম সময়ে পাঠানোর জন্য সবাই ব্যবহার করেন মেইল মার্জ অপশন যা মাইক্রোসফট ওয়ার্ডের মেইলিং ট্যাবের একটি গুরুত্বপূর্ণ ফিচার। পূর্বে যা ম্যানুয়েলি অনেক সময় নিয়ে বিভিন্ন কর্মকর্তার জন্য আলাদাভাবে টাইপ রাইটার দিয়ে টাইপ করে আলাদা এনভেলাপে করে অনেক সময় নিয়ে পাঠান লাগত-সেই ঝামেলার কাজটি বেশ সহজ করে দিয়েছে এম এস ওয়ার্ড।

 

অফিসিয়াল ডাটা ম্যানেজমেন্টের এক অপরিহার্য সফটওয়্যার হল এম এস এক্সেল। এমন কোন কোম্পানী খুঁজে পাওয়া দুষ্কর যারা তাদের ডাটা ট্র্যাকিং এর জন্য এক্সেলের স্বরণাপন্ন হচ্ছে না। কারণ, এক্সেলের বিকল্প কোন সহজ সফটওয়্যার নেই যা এত সুন্দরভাবে ডাটাবেজ ম্যানেজমেন্টের এই কাজটি করতে পারবে। একাউন্টন্স, স্টোর, সাপ্লাই চেইন থেকে শুরু করে এইচ-আর পর্যন্ত সর্বক্ষেত্রেই ডাটা স্টোর ও রেকর্ডের জন্য এক্সেলের ব্যবহার সর্বক্ষেত্রে বেশ লক্ষ্যণীয়। মাইক্রোসফট এক্সেলের সাহায্যে আমরা দৈনন্দিন হিসাব সংরক্ষণ ও বিশ্লেষণ করতে পারি ও বার্ষিক বাজেট প্রণয়ন করতে পারি। এছাড়াও ব্যাংক ব্যবস্থাপনায়  কাজ করতে পারি ও আয়কর ও অন্যান্য হিসাব-নিকাশ তৈরি করতে পারি। বৈজ্ঞানিক ক্যাল্কুলেশনের ক্ষেত্রেও কিন্তু ব্যাপক ভূমিকা রাখে এক্সেল এর ক্যালকুলেশন। এছাড়াও, বিভিন্ন অফিসের বেতন-বোনাসের হিসাব ও স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজাল্ট প্রস্তুতকরণেও এক্সেল এর কোন বিকল্প তৈরি হয়নি এখনো। সায়েন্টিস্টরা তাদের গবেষণার যে বিশাল ডাটা বছরের পর বছর সংরক্ষণ করেন তার জন্যও নির্ভরতার এক নাম হল এক্সেল। ব্যাংক কর্মকর্তারা এক্সেলের স্ট্যাস্টিক্যাল ফাংশনগুলোর মাধ্যমে ব্যাংক লোনসহ ব্যাংকের যাবতীয় বিষয়াবলী হিসাব করে থাকেন।এছাড়াও, লজিক্যাল ফাংশনের মাধ্যমে শিক্ষা বোর্ড কর্মকর্তারা খুব দ্রুত গ্রেড ভিত্তিক রেজাল্ট তৈরি করে থাকেন।বিভিন্ন কোম্পানীর বিপণ্ন বিভাগের কর্মকর্তারা সেলস ডাটা ব্যবহার করে ফোরকাস্টিং করার জন্য মাইক্রোসফট এক্সেলের সহায়তা নিয়ে থাকেন। এভাবেই, মাইক্রোসফট এক্সেল সফটওয়্যারটি আমাদের দৈনন্দিন জীবনের বিভিন্ন ক্ষেত্রে ওতোপ্রোতভাবে জড়িয়ে থাকে।

 

মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্টের ব্যবহার শিক্ষক-শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে কর্মজীবি সবাই করে থাকেন। আর আপনি যদি কোন কোম্পানীর মার্কেটিং বিভাগের সদস্য হন তাহলে তো আর কথাই নেই। মার্কেটিং এর কর্মকর্তাদের জীবিকা অর্জনের অনেকটাই নির্ভর করে পাওয়ার পয়েন্টের দক্ষতার উপর। যে পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে যত বেশি দক্ষতা প্রদর্শন করে ক্লায়েন্টের কাছে কোম্পানীর ব্র্যান্ড ইমেজ তুলে ধরতে পারেন, তার প্রমোশনও এই ফিল্ডে তত দ্রুত হয়। কারণ, প্রোডাক্ট যত ভালই হোক না কেন, তার বিক্রয়ের বিষয়টি পুরোপুরি নির্ভর করে মার্কেটিং বিভাগের তৎপরতার উপর।বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা তাদের পুরো শিক্ষাজীবনে বিভিন্ন বিষয়ে যে প্রেজেন্টেশন প্রদান করেন, তা পুরোপুরি পাওয়ার পয়েন্ট নির্ভর। এমনকি থিসিস পেপার প্রেজেন্টেশনের জন্যও প্রয়োজন হয় পাওয়ার পয়েন্টে দক্ষতার। তাই, বলা যায় যে, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য পাওয়ার পয়েন্টে দক্ষতার কোন বিকল্প নেই।

What Will You Learn?

  • এই কোর্সটি করে আপনি চাকরি/অনলাইনে কি কি কাজ করতে পারবেনঃ
  • এক্সেল ব্যবহার করে অফিস ডাটাবেজ ম্যানেজমেন্ট
  • এক্সেল ডাটা ব্যবহার করে সেলস এনালাইসিস
  • এক্সেল টেবল ও চার্ট ব্যবহার করে ডাটা এনালাইসিস
  • এক্সেল ম্যাক্রোস
  • ওয়ার্ড ডকুমেন্ট ডিটেইলস
  • ডাটা এন্ট্রি
  • ডাটা প্রসেসিং
  • ডাটা আর্কিটেকচার
  • বুক কিপিং
  • ইমেইল হ্যান্ডেলিং
  • পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন ডিটেইলস
  • পাওয়ার পয়েন্ট ব্যবহার করে চার্ট ও ডাটা প্রেজেন্টেশন
  • ইনফোগ্রাফিক ও পাওয়ার পয়েন্ট স্লাইড ডিজাইনিং
  • অর্থাৎ এই কোর্সটি সম্পূর্ণরূপে শেষ করতে পারলে আপনি মাইক্রোসফট ওয়ার্ড-এক্সেল-পাওয়ার পয়েন্টের বিভিন্ন খুঁটিনাটি বিষয়ে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

About the instructor

Course Curriculum

এক্সেল বেসিকস

ফরমেটিং বেসিকস

  • ০৮ঃ কন্ডিশনাল ফরমেটিং
    13:48
  • ০৯ঃ কন্ডিশনাল ফরমেটিং লজিক
    14:56
  • ১০ঃ নিউমেরিক ফরমেট
    14:56
  • ১১ঃ স্পেশাল ফরমেট
    12:36
  • ১২ঃ মার্জ এন্ড সেন্টার-ইন্ডেন্টিং
    12:36
  • ১৩ঃ রো এন্ড কলাম ফরমেটিং
    12:36
  • ১৪ঃ মুভ, কপি, ইন্সার্ট, ফাইন্ড, রিপ্লেস
    13:48

এক্সেলের সিম্পল ফর্মুলা

  • ১৫ঃ সিম্পল ফর্মুলা
    13:48
  • ১৬ঃসাম এন্ড এভারেজ
    12:36
  • ১৭ঃ হায়ারারকি অপারেশন, ইন্সার্ট ফাংশন
    14:56
  • ১৮ঃ পিএমটি এর ব্যবহার
    12:36
  • ১৯ঃ এবসোলিউট রিলেটিভ রেফারেন্সের ব্যবহার
    12:36
  • ২০ঃমিক্সড রেফারেন্সের ব্যবহার
    12:36

লজিক্যাল ফাংশন এর প্রয়োগ

  • ২১ঃ ইফ ফাংশন ও নেস্টেড ইফের ব্যবহার
    12:36
  • ২২ঃ ইফ ফাংশনের সাথে এন্ড, অর ও নটের ব্যবহার
    12:36
  • ২৩ঃ ভিলুক আপ, এইচ লুক আপ-এপ্রোক্সিমেট ম্যাচের ব্যবহার
    12:36
  • ২৪ঃভিলুক আপ, এইচ লুক আপ-এক্সেক্ট ম্যাচের ব্যবহার
    12:36
  • ২৫ঃ লার্জ ভিলুক আপ, চুজ ফাংশনের ব্যবহার
    12:36
  • ২৬ঃ ম্যাচ-ইনডেক্স
    12:36

স্ট্যাটিস্টিক্যাল ফাংশন এর ব্যবহার

  • ২৭ঃ মেডিয়ান-মোডের ব্যবহার
    12:36
  • ২৮ঃ ম্যাক্স, মিন, কাউন্ট ব্ল্যাঙ্কের ব্যবহার
    12:36

এক্সেলে ম্যাথ ফাংশন এর ব্যবহার

  • ২৯ঃরাউন্ডের ব্যবহার
    12:37
  • ৩০ঃ ট্রাঙ্ক-ইন্ট-অড- মডের ব্যবহার
    12:43
  • ৩১ঃর‍্যান্ডম-কনভার্টের ব্যবহার
    12:37

এক্সেলে ডেট-টাইম ফাংশনের প্রয়োগ

  • ৩২ঃডেট-টাইম বেসিকস
    12:37
  • ৩৩ঃডেট টাইম ফাংশন
    12:37
  • ৩৪ঃউইকডে-নেটওয়ার্কডে
    12:37
  • ৩৫ঃ ডেট ডিফ-ইডেট-ইমান্থ
    12:37

এক্সেলের এডভান্স ফর্মুলা

  • ৩৬ঃএরে ফর্মুলা-ইউনিক
    12:37
  • ৩৭ঃফ্রিকুয়েন্সি ডিস্ট্রিবিউশন-ট্রান্সপোস
    13:48
  • ৩৮ঃফাইন্ড ফর্মুলা-অডিটিং টুলস
    12:37
  • ৩৯ঃরো-কলাম রেফারেন্স-কপি কলাম
    12:37
  • ৪০ঃফর্মুলা-ভ্যালুস-আপডেট
    12:37

পিভোট টেবল বেসিকস

  • ৪১ঃপিভোট টেবল ইন্ট্রোডাকশন
    14:56
  • ৪২ঃ রিকোমেন্ড-পিভোটিং পিভোট টেবল
    14:56
  • ৪৩ঃকনফিগার পিভোট-এক্সটারনাল
    14:56
  • ৪৪ঃকনসোলিডেটিং আইডেন্টিক্যাল-মেনেজার
    14:56
  • ৪৫ঃসাব-গ্র্যান্ড টোটাল-সামারি টেবল
    14:56

পিভোট টেবল ইন্টারমিডিয়েট

  • ৪৬ঃ সর্টিং ডাটা-কলাম সর্ট
    14:56
  • ৪৭ঃসিলেকশন-ফিল্টার রুল
    12:37
  • ৪৮ঃসার্চ ফিল্টার-স্লাইসার-ফরম্যাট
    12:37
  • ৪৯ঃ রিপোর্ট ফিল্টার-ক্লিয়ারিং
    12:37
  • ৫০ঃকন্ডিশনাল রুলস-টপ-নিউ
    12:37

পিভোট টেবল এডভান্সড

  • ৫১ঃডাটা বারস,কালার স্কেলস
    13:48
  • ৫২ঃক্রিয়েট পিভোট চার্ট
    14:56
  • ৫৩ঃফিল্টার পিভোট চার্ট-ফরমেট পিসি
    08:00
  • ৫৪ঃ চেইঞ্জ লেয়াউট-চেইঞ্জ চার্ট টাইপ
    12:37
  • ৫৫ঃ প্রিন্টিং পিভোট টেবল এন্ড চার্ট
    12:37
  • ৫৬ঃরেকর্ডিং এন্ড রিভিউ ম্যাক্রো
    12:37

এক্সেল চার্ট বেসিক

  • ৫৭ঃএক্সেল চার্ট বেসিক
    12:37
  • ৫৮ঃ বিল্ডিং চার্ট
    11:59
  • ৫৯ঃ স্পার্কলাইন-চার্ট বিল্ড
    11:17
  • ৬০ঃএড এলিমেন্ট-কুইক লেয়াউট
    12:37
  • ৬১ঃসুইচ রো-কলাম,চেইঞ্জ লেয়াউট অফ সোর্স ডাটা
    06:10
  • ৬২ঃ এক্সিস মোডিফাই-চার্ট টাইটেল-লিংক টাইটেল
    12:37
  • Draft Lesson

এক্সেল চার্ট এডভান্সড

  • ৬৩ঃ ডাটা লেভেলস-ডাটা টেবলস
    12:37
  • ৬৪ঃ এরোর বারস, গ্রিডলাইন লিজেন্ডস
    12:37
  • ৬৫ঃলাইন-ট্রেন্ডলাইন্স
    12:37
  • ৬৬ঃইউজ পিকচার- এড শেইপস এন্ড এরো
    12:37
  • ৬৭ঃ প্রিন্টিং পেইজ লেয়াউট,পেইজ ব্রেক প্রিভিউ
    12:37

ফাইল শেয়ারিং ও সিকিউরিটি

  • ৬৯ঃ প্রোটেক্ট ওয়ার্কশিট-ওয়ার্কবুক
    12:36
  • ৭০ঃশেয়ারিং-ট্র্যাকিং ওয়ার্কশিট
    12:37
  • ৬৮ঃওয়ার্কশিট ভিউ, স্প্লিট স্ক্রিন
    12:37

এম এস ওয়ার্ড বেসিক টেক্সট ফরমেটিং

এম এস ওয়ার্ড পেইজ ফরমেটিং

  • ৭৬ঃপেইজ ফরমেটিং-লেয়াউট-হেডার
    12:37
  • ৭৭ঃ সেকশন হেডার-ফুটার
    09:33
  • ৭৮ঃবুলেটস-নাম্বারিং
    09:03
  • ৭৯ঃইলাস্ট্রেট ডকুমেন্ট-শেইপ-ইমেজ-আইকন
    14:36
  • ৮০ঃঅটো কারেক্ট প্রুফিং
    07:38
  • ৮১ঃস্পেলিং এন্ড গ্রামার
    07:14
  • ৮২ঃপ্রিন্ট-পাসওয়ার্ড
    08:58

মেইল মার্জ ডিটেইলস

  • ৮৪ঃম্যাচ ফিল্ড-এড্রেস ব্লক
    09:56
  • ৮৫ঃ মার্জ
    09:21
  • ৮৩ঃমেইল মার্জ
    00:00

এনভেলাপ-লেভেলস ডিটেইলস

  • ৮৬ঃ এনভেলাপ-লেভেলস
    14:15
  • ৮৭ঃগ্লোবাল ফিল ইন
    07:04
  • ৮৮ঃ স্পেসিফিক ফিল ইন
    10:05
  • ৮৯ঃ আস্ক কমান্ড
    09:32

এম এস ওয়ার্ডে ফর্ম তৈরি

  • ৯০ঃ ফর্ম-ডেভেলাপার ট্যাব ইন্টারফেস পরিচিতি
    12:36
  • ৯১ঃফর্মেটিং ফর্মস
    09:09
  • ৯২ঃ কন্ট্রোলস-রিচ-প্লেইন টেক্সট
    08:26
  • ৯৩ঃ কম্বো বক্স-ড্রপ ডাউন লিস্ট
    07:41
  • ৯৪ঃ ডেট পিকার-চেক বক্স কন্ট্রোল
    07:10
  • ৯৫ঃ রিপিট কন্ট্রোল-পিকচার কন্টেন্ট কন্ট্রোল
    05:41
  • ৯৬ঃরেস্ট্রিক্ট এডিটিং-গ্রুপ ইন কন্ট্রোল
    11:34
  • ৯৭ঃ ওয়ার্ড টেমপ্লেট
    05:14
  • ৯৮ঃ বিল্ডিং ব্লক অনুধাবন
    04:24
  • ৯৯ঃ বিল্ডিং ব্লক তৈরি ও সেভ করা
    10:47
  • ১০০ঃডেভেলাপার কন্ট্রোল-বিল্ডিং ব্লক
    06:05

পাওয়ার পয়েন্ট ইন্ট্রোডাকশন

পাওয়ার পয়েন্টের বিভিন্ন টুলস

  • ১০৬ঃ লেয়াউট চেইঞ্জ করা-সেকশন-রিএরেঞ্জ
    12:43
  • ১০৭ঃ পিকচার এড করা-গাইড ব্যবহার করা
    11:59
  • ১০৮ঃ পিকচার ফরমেট করা
    12:43
  • ১০৯ঃঅব্জেক্ট লেয়ারিং-রিমোভ ব্যকগ্রাউন্ড
    12:43
  • ১১০ঃ আই ড্রপার টুল ব্যবহার
    12:43
  • ১১১ঃ বুলেটস-নাম্বারিং-আউটলাইন টেক্সট
    12:43
  • ১১২ঃওয়ার্ড আর্ট-টেক্সট বক্স
    12:43
  • ১১৩ঃ টেবলস
    12:43
  • ১১৪ঃ এড শেইপস-ফরমেট শেইপস
    12:43
  • ১১৫ঃ পিকচার ক্রপিং
    12:43
  • ১১৬ঃচার্ট তৈরি করা
    12:43
  • ১১৭ঃ স্মার্ট আর্ট-ইকুয়েশন
    12:43
  • ১১৮ঃ ভিডিও-অডিও এড করা
    12:43
  • ১১৯ঃ স্লাইড ট্রানজিশন- এনিমেশন
    12:43
  • ১২০ঃ স্পিকার নোট-হ্যান্ডয়াউট-রিহার্স
    12:43

পাওয়ার পয়েন্ট স্লাইড প্রেজেন্টেশন টেকনিক

  • ১২১ঃকমেন্ট এড করা
    04:13
  • ১২২ঃ প্রেজেন্টার ভিউ
    08:46
  • ১২৩ঃ সেইভ থিম-প্রিন্ট
    06:08
  • ১২৪ঃসেইভ পাওয়ার পয়েন্ট এজ টেম্পলেট
    08:02
  • ১২৫ঃ সেইভ পাওয়ার পয়েন্ট এজ পিডিএফ/জেপিজি ফরমেট
    07:55
  • ১২৬ঃ মর্ফ এনিমেশন তৈরি
    06:59
  • ১২৭ঃ মাইক্রোসফট অফিসের ফন্ট-পিকচার-আইকন প্রভৃতির সোর্স কন্টেন্ট
    06:10

Student Ratings & Reviews

5.0
Total 6 Ratings
5
6 Ratings
4
0 Rating
3
0 Rating
2
0 Rating
1
0 Rating
SA
2 months ago
Without any doubt this course is absolutely great. Thanks a lot.
SN
3 months ago
It’s realy important online course.
Md Arifur Rahman
3 months ago
Amazing course
Rejwan Ahamed
3 months ago
Without any doubt this course is absolutely great. Thanks a lot.
Amazing course
J
5 months ago
Its really an amazing online course.I am very delighted to enroll such an amazing course.

Want to receive push notifications for all major on-site activities?